ওড়ো অবাধে হয়ে অবাধ্য
        অর্জিত হোক যা কিছু অসাধ্য...

আপনারা হয়তো আগের পোষ্ট এবং টিউটোরিয়ালগুলো থেকে ক্যামেরা এবং লেন্স সম্পর্কে প্রাথমিক; ধারনা পেয়ে গেছেন। এবার ক্যাননের ডিএসএলআর এবং লেন্স সম্পর্কে এখানে বিস্তারিত আলোচনা হবে।

আপনারা যারা আগের পোষ্টগুলো ভালোমত পড়েননি তারা এখান থেকে পড়ে নিতে পারেন।
আমরা জেনেছি যে ডিজিটাল এসএলআর ক্যামেরায় ফিল্মের বদলে সেন্সর ব্যাবহার করা হয়। এই সেন্সর আবার অনেক প্রকার হয়ে থাকে। যেমন ৩৫মিমি বা ফুল ফ্রেম সেন্সর, ক্রপ সেন্সর ইত্যাদি।
এই টেবিলে আমরা বিভিন্ন আকারের সেন্সর দেখতে পাচ্ছি। এদের মধ্যে ক্যানন ডিএসএলআর ক্যামেরায় তিন ধরনের সেন্সর ব্যাবহার করা হয়। এগুলো হলোঃ
  • Full Frame – No Crop/Entire Image (Canon FF)
  • APS-H – 1.3x crop factor – Blue Border
  • APS-C – 1.6x crop factor – Green Border
Full Frame: 
ফুল ফ্রেম ক্যামেরার সেন্সর সবচেয়ে বড় হয়ে থাকে। একারনে ছবির অরিজিনাল ফিল্ড অব ভিউ পাবেন। সেন্সর সাইজ বড় বলে ছবির ডিটেইলস দেখতে পারবেন এবং নয়েজও কম আসবে। একটি ক্রপ সেন্সর ক্যামেরায় ৬৪০০ ISO তে ছবি নয়েজে প্রায় নষ্ট হয়ে যায়। কিন্তু ফুল সেন্সর ক্যামেরায় 6400 ISO তেমন কোন প্রভাব ফেলে না। বড় মিরর এবং বড় ম্যাটারিয়াল ব্যাবহার করার জন্য এটার ভিউফাইন্ডারের ছবিও বড় এবং উজ্জ্বল হয়।
কিন্তু ফুল ফ্রেম ক্যামেরার  সমস্যা হলো এগুলোর দাম অনেক বেশি হয়। এবং এগুলো সব প্রফেশনাল মানের ক্যামেরা।
ক্যানন এর ফুল ফ্রেম বা ফুল সেন্সর ক্যামেরাগুলো হলোঃ
  • Canon EOS 1D X
  • Canon EOS 1Ds Mark III
  • Canon EOS 1Ds Mark II
  • Canon EOS 1Ds
  • Canon EOS 5D Mark III Review
  • Canon EOS 5D Mark II
  • Canon EOS 5D
  • Canon EOS 6D
ক্যাননের ফুল ফ্রেম ক্যামেরার জন্য ফুল ফ্রেম লেন্স প্রয়োজন। ক্যাননের ফুল ফ্রেম লেন্সকে EF লেন্স বলা হয়।
APS-C:
এটি বর্তমানে সবচেয়ে বেশী প্রচলিত ডিএসএলআর ক্যামেরা সেন্সর। APS-C বা ক্রপ সেন্সর আকারে ফুল সেন্সরের প্রায় অর্ধেক। তাই এগুলোর দাম অনেক কম। কিন্তু APS-C বা ক্রপ সেন্সর ক্যামেরাতেও অনেক চমৎকার ছবি তোলা সম্ভব এবং ফুল ফ্রেম সেন্সরের ক্যামেরার মত ব্যাবহার করা যায়।
ক্যানন এর APS-C বা ক্রপ সেন্সর ক্যামেরাগুলো হলোঃ
  • Canon EOS 7D
  • Canon EOS 70D
  • Canon EOS 60D
  • Canon EOS 50D
  • Canon EOS 40D
  • Canon EOS 30D
  • Canon EOS 20D
  • Canon EOS 10D
  • Canon EOS 700D/Rebel T5i
  • Canon EOS 650D/Rebel T4i
  • Canon EOS 600D/Rebel T3i
  • Canon EOS 550D/Rebel T2i
  • Canon EOS 500D/Rebel T1i
  • Canon EOS 450D/Rebel XSi
  • Canon EOS 400D/Rebel XTi
  • Canon EOS 350D/Rebel XT
  • Canon EOS 300D/Rebel
  • Canon EOS 100D/SL1
  • Canon EOS 1100D/Rebel t3
  • Canon EOS 1000D/Rebel XS
  • Canon EOS D60
  • Canon EOS D30
ক্রপ সেন্সর ক্যামেরায় ক্রপ সেন্সর লেন্স ব্যাবহার করা হয়। ক্যাননের ক্রপ সেন্সর লেন্সগুলোকে EFS লেন্স বলা হয়।
 
এখন কথা হচ্ছে ফুল ফ্রেম ক্যামেরায় ক্রপ সেন্সর সেন্স ব্যাবহার করা যাবে কি না? বা EF মাউন্টে EFS লেন্স ব্যাবহার করা যাবেকি?
উত্তর হচ্ছে ব্যাবহার করা যাবে। তবে এক্ষেত্রে এডাপ্টর ব্যাবহার করতে হবে এবং ছবি কাটা পড়বে। ঠিক এরকমঃ
 
তাই EF মাউন্টে EFS লেন্স ব্যাবহার না করাই উত্তম।
কিন্তু EFS মাউন্টে EF লেন্স খুব সহজেই ব্যাবহার করা যায়। কোন রকম এডাপ্টর বা এক্সটেনশন টিউবেরও প্রয়োজন হয় না। কিন্তু ৫০ মিমি এর EF লেন্স ১.৫ ক্রপ ফেক্টর ক্যামেরায় ৭৫ মিমি লেন্স হিসেবে কাজ করবে।
EF vs EF-S lens
EF vs EF-S lens mount
এখানে EF এবং EF-S লেন্সের চিহ্নের মধ্যে পার্থক্য দেখানো হলো। মূলত এটি দেখেই এদের পার্থক্য বোঝা যায়।
APS-H: 
এটি হচ্ছে ফুল সেন্সর এবং ক্রপ সেন্সরের মধ্যবর্তী ক্যামেরা। এগুলোতে EF-M মাউন্ট লেন্স ব্যাবহার করা হয়। ক্যানন এর APS-H বা ক্যামেরাগুলো হলোঃ
  • Canon EOS 1D Mark IV
  • Canon EOS 1D Mark III
  • Canon EOS 1D Mark IIN
  • Canon EOS 1D Mark II
  • Canon EOS 1D
👤 এই ছিলো সংক্ষেপে ক্যাননের বিভিন্ন রকম ডিএসএলআর এবং লেন্স। গুগোলে সার্স দিয়ে এগুলো সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন। আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে বলতে পারেন। উত্তর দিতে চেষ্টা করবো।
সবাইকে ধন্যবাদ।