ওড়ো অবাধে হয়ে অবাধ্য
        অর্জিত হোক যা কিছু অসাধ্য...

জাদুর শহর ঢাকা। কিন্তু ঢাকার এতো চাকচিক্যের আড়ালেও রয়ে গেছে বিপদের অনেক ফাঁদ। ঢাকা শহরে নতুন বা অপরিচিত হলে আপনিও ফেসে যেতে পারেন আমন কোন সমস্যার ফাঁদে। তাই আপনাদের জন্য এখানে তুলে ধরছি ঢাকায়  ছিনতাইকারীদের থেকে সাবধান থাকার কিছু টিপসঃ

১. ফার্মগেটে হঠাৎ দেখতে পেলেন, কতগুলো মানুষ একজন মানুষ কে মেরে রক্তাত্ত করে চলেছে আর সে আপনাকে বলছে ভাই, সাহায্য করেন। আপনি দয়া দেখাতে গিয়ে রক্ষা করতে এগিয়ে গেলেই বিপদ হতে পারে। ওরা আপনাকে মেরে সব কিছু নিয়ে যেতে পারে, কারণ তারা সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র।

২. ওভার ব্রিজ এর উপর মহিলা কাঁদছে যে, সে যার সাথে দেখা করবে তার মোবাইলে কল দিতে হবে কিন্তু তার কাছে টাকা নেই। বলবে আপনার মোবাইল দিয়ে সেই লোকের নাম্বারে মিসকল দিলেও সে ব্যাক করবে। আপনি কল দিলেন তো ফাঁদে পড়লেন। ওরা নিরীহ মানুষ দেখে তাদের নম্বর সংগ্রহ করে ও পরবর্তীতে সেই নাম্বারে কল করে লোভনীয় প্রস্তাব দেয়, রাজী হলে আপনাকে তাদের আস্তানাতে নিয়ে ব্লাক মেইল করবে।

৩. শাহবাগ, মহাখালী, যাত্রাবাড়ী জ্যামে আটকে আছেন, নানা ধরণের লিফলেট পেতে পারেন। যেমনঃ দুর্বলতা, রোগ মুক্তি ইত্যাদি। এইগুলো সবই নানা লোভে আপনাকে ফাঁদে ফেলার ব্যবস্থা। অনেক সময় এমন ও বলে যে রুম ডেট এর ব্যবস্থা আছে।

৪. রাস্তায় সুন্দর চোখ এর বোরকা আলি আপনার সাথে কথা বলতে চায়, প্রেমের প্রস্তাব নয়, কিন্তু ইসারা যে আপনি ভাববেন একটু চেষ্টা করলে কাছে পাবেন। যদি তাই ভাবেন তবে ধরা পড়ার সম্ভাবনা শতভাগ। আপনাকে তাদের আস্তানায় নিবে, তারপর আর কিছু আপনার করা লাগবে না। সব হারাবেন। মেয়ে দিয়ে ব্লাক মেইল করবে।

৫. গাবতলি, সায়েদাবাদ, কিংবা সদরঘাট, মাওয়া, আরিচা, দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে বসে আছেন, দেখলেন যে বাইরে তাস, লুডু ইত্যাদি খেলছে, কাছে গেলেন কি ফেঁসে গেলেন।

৬. যাত্রাপথে অপরিচিত লোক এর সাথে মতবিনিময় করবেন খুবই কম। এমন ভাবে থাকবেন যে, আপনি যে স্থানে যাবেন সে স্থান যেন আপনার পরিচিত।


৭. রেলগাড়ির ছাঁদে চলাচল করা থেকে বিরত থাকবেন, কারণ এক দল ছেলে পাওয়া যায়, যারা রেলের ছাদের উপর থেকে ছিনতাই করে ছাদ থাকে ফেলে দেয়।

৮.৯. লঞ্চ এ কম যাত্রী থাকলে উঠবেন না। বাসে ওঠা-নামার সময় সতর্ক থাকবেন। কারন বাসে ওঠার সময় ছিনতাইকারীরা নিজেরাই বাসের গেটে দাঁড়িয়ে ভিড় তৈরি করে। তারপর যাত্রীকে সেই ভিড়ের মধ্যে চেপে ধরে ফোন নিয়ে নেয়। এক্ষেত্রে ফোনে হেডফোন লাগিয়ে রাখতে পারেন। ফোন  ছিনতাইকারীরা কানে হেডফোন দেখলে কম  টার্গেট করে।

১০. হেঁটে যেতে হলে রাস্তার পাশে পার্কিং করে রাখা বিভিন্ন বাসের মাঝখান দিয়ে যাওয়া অনুচিত কারণ নেশাখোর ওঁত পেতে থাকে ছিনতাই এর জন্য।
এছাড়াও যাতায়াতের সময় এ জাতীয় অন্যান্য ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।